দেশ বিনোদন সংস্কৃতি

হৃদয়ে লেখো নাম সে নাম রয়ে যাবে….জন্মদিনে ফিরে দেখা মান্না দে

সমর্পিতা বন্দোপাধ্যায় , কলকাতা : প্রবোধ চন্দ্র দে তাঁর আজ ১০১ তম জন্মদিন । চিনতে পারছেন না..?? “কফি হাউস”এর সেই বিখ্যাত গানটা মনে আছে যা আজও নতুন প্রজন্মদের কাছে কফি হাউসের গিয়ে আড্ডা দেবার জায়গা বা ধরুন “আমি যামিনী তুমি শশী হে , ভাতিছ গগন মাঝে…” । একদম ঠিক ধরেছেন মানে আমাদের সকলের প্রিয় মান্না দে-র কথা বলছি । আধুনিক বাংলা গানের সাথে যিনি নিজেকে ডুবিয়ে দিয়েছিলেন তার সুরের যাদুতে।

তাঁকে নিয়ে যাই লেখা হোক না কোনো সবই তার তুলনায় অতি সামান্য । ব্রিটিশদের শাসনে যখন সারা দেশ কাঁপছে ,তখন ঈশ্বর তার বর পুত্রকে সুরের চাবিকাঠি দিয়ে পাঠান কলকাতার দে পরিবারে । ছোট থেকে বড়ো হয়ে ওঠা পড়াশোনা সবই তার এই রূপসী বাংলায় । ছোট কাকা কৃষ্ণ চন্দ্র দে-র হাত ধরেই মুম্বাইতে পাড়ি দিয়েছিলেন । ১৯৪২ সালে প্রথম প্লেব্যাক করেন একটি হিন্দি ছবিতে । বাংলা , হিন্দি , মারাঠি , গুজরাটি সহ বহু ভাষাতে তিনি গান গেয়েছেন। সন্ধ্যা মুখার্জী , লতাজি , কিশোর কুমার ,রফি সাহেবদের সাথে বহু সিনেমাতে গান গেয়েছেন একসাথে।

তাঁর এই সংগীতময় জীবনে বহু সম্মানে ভূষিত হয়েছেন বারংবার । পদ্মশ্রী ,পদ্মভূষণ ,দাদা সাহেব ফালকে , বঙ্গবিভূষণ এছাড়াও তাঁর ঝুলিতে রয়েছে বহু সম্মান । তাঁর সেই বিখ্যাত গান গুলো আজও আমাদের হৃদয়ের রয়েছে । যেমন , “ও চাঁদ সামলে রাখো জোছনাকে” , “সুন্দরী গো দোহাই তোমার” , “ললিতা ওকে আজ চলে যেতে বল না”, “সবাই তো সুখী হতে চায়”, “যদি কাগজে লেখো নাম”, “এ মেরি জোহরা জবি”, “জিন্দেগী কইসি হ্যা পহেলি হায়….” আরও বহু বিখ্যাত সেই সব গান.. ।

আজ তাঁর জন্মদিনে আমাদের তরফ থেকে রইল প্রণাম ও শ্রদ্ধা । আপনি যেখানেই থাকুন ভালো থাকুন ।

Follow Me:

Related Posts