রাজ্য

হুগলীতে নাবালিকার শ্লীলতাহানির ঘটনায় অভিযুক্ত তৃণমূল নেত্রীর স্বামী , বিস্ফোরক দাবি করল বিজেপি

Bangla 24×7 Desk : আমফানের ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে রাজ্য জুড়ে বেকায়দায় শাসক দল তৃণমূল । বিভিন্ন জায়গা থেকে ত্রাণের তালিকা তৈরিতে গড়মিলের অভিযোগ উঠেছে শাসক দলের বিরুদ্ধে । এই অবস্থায় দলের ভাবমূর্তিতে কালি লাগার মতো ঘটনা ঘটল ।

পাণ্ডুয়ায় নাবালিকার শ্লীলতাহানির ঘটনায় এবার নাম জড়াল তৃণমূলের। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের দাবি করেছে অভিযুক্ত প্রৌঢ় স্থানীয় তৃণমূল নেত্রীর স্বামী। যদিও এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে শাসক দলের ব্লক সভাপতি ।

সূত্রের খবর , গত সোমবার বাড়িতে একাই ছিল বছর ১৩-এর নাবালিকা। সেই সময় চুপিসারে নাবালিকার ঘরে ঢোকে প্রতিবেশী প্রৌঢ় কেষ্ট কর্মকার। বেশ কিছুক্ষণ কিশোরীর সঙ্গে কথা বলে সে। এরপর সেই নাবালিকা বাথরুমে যেতেই তার পিছু নেয়। শৌচাগারে ঢুকে কিশোরীর শ্লীলতাহানি করে।

নিগৃহীতার আর্তনাদে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে ধরে ফেলে অভিযুক্তকে। এরপরই তাকে বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে বেধড়ক মারধর করা হয়। কেটে দেওয়া হয় মাথার চুল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় পাণ্ডুয়া থানার পুলিশ। তাঁদের সামনেও চলে চড়-থাপ্পড়। এরপর সেখান থেকেই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এরপর জানা যায় যে অভিযুক্ত কেষ্ট কর্মকার তৃণমূল নেত্রীর স্বামী। এই ঘটনার জেরে যথেষ্ট বেকায়দায় পড়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব । যদিও এই সব ব্যাপারে রাজনৈতিক আলোচনায় যেতে নারাজ নিগৃহীতার পরিবার । তাঁরা অভিযুক্তের শাস্তির দাবি করেছেন ।

Follow Me:

Related Posts