রাজ্য

বাগনানে ধর্ষকের হাত থেকে মেয়েকে রক্ষা করতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু , অভিযুক্তকে দল থেকে বহিস্কার করল তৃণমূল কংগ্রেস

Bangla 24×7 Desk : মেয়ের সম্মান রক্ষা করতে গিয়ে মায়ের মৃত্যু । মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার বাগনানে । তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে বিক্ষোভে সামিল হয় বিজেপি । শ্লীলতাহানির ঘটনায় নাম জড়িয়েছে বাগনান ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্যার স্বামী তৃণমূল নেতা কুশ বেরা সহ দু’জনের।

জানা গেছে , কিছু সমস্যা থাকার কারণে ঘরের ভিতর থেকে উঠে গিয়ে বাড়ির ছাদে গিয়েছিল বাগনান কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ঐ ছাত্রী । সেই সময় ছাদে লুকিয়ে থাকা অভিযুক্ত পিছন থেকে জড়িয়ে ধরে ঐ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি করে । মেয়ের চিৎকার শুনে ছাদে ওঠেন ঐ ছাত্রীর মা । মেয়ের শ্লীলতাহানিতে বাধা দিতে গেলে ব্যক্তির সঙ্গে ধস্তাধস্তি হতে শুরু হয় কলেজ ছাত্রীর মায়ের। ধাক্কা দেয় ওই ব্যক্তি। ছিটকে সিঁড়ি দিয়ে গড়িয়ে নিচে পড়ে যান কলেজ ছাত্রীর মা। এরপর ছাদের সিঁড়ি থেকে পড়ে মারা যান । বেগতিক দেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তরা l হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা ।

ঘটনার খবর পেয়ে ময়দানে নামে পদ্ম শিবির । উলুবেড়িয়া হাসপাতালে পৌঁছন হুগলির সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় এবং বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁ। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের দাবিতে বাগনান থানার সামনে শুরু হয় বিক্ষোভ l পাশাপাশি বাগনানের খাদিনান মোড়ের কাছে ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন বিজেপি সাংসদ লকেট চট্টোপাধ্যায় ও সৌমিত্র খাঁ এবং বিজেপি কর্মী সমর্থকরা । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছান উলুবেড়িয়ার এসডিপিও l সেখানেই তিনি নিগৃহীতা ছাত্রীর এফআইআর নেন l পরে হাওড়া থেকে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতা কুশ বেরাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ l

বুধবার রাতেই রাজ্যের পুরমন্ত্রী তথা জেলা তৃণমূল পর্যবেক্ষক ফিরহাদ হাকিম জানান , “ অভিযুক্তকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে ” l অভিযুক্ত আপতত পুলিশ হেফাজতে রয়েছে l তাঁর সঙ্গীর খোঁজ চলছে l স্থানীয় তৃণমূল বিধায়ক অরুণাভ সেন জানিয়েছিলেন অভিযোগ প্রমাণিত হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে l সেই কথার রেশ কাটতে না কাটতেই কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিল তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব l

Follow Me:

Related Posts