দেশ

স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী নার্সকে ফোন করে কুর্নিশ জানালেন করোনায় অক্লান্ত পরিশ্রমের জন্যে

Bangla24x7 Desk: বাড়ি ফেরার তাগিদ নেই। বেশ কয়েকদিন হলো বাড়ির পরিবারের সাথে কথাও হয়নি তাঁর। ছুটিতে বাড়ি যাবার কথা ছিলো। কিন্তু আর ফেরা হলো না। কারণ একটাই যে, বিশ্বের মারণ ভাইরাস করোনা এখন থাবা দিয়েছে ভারতে। দু’চোখের পাতা একও হয়নি বেশ কিছু রাত। চিকিৎসকদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়ছেন করোনা সংক্রমণে আক্রান্ত রোগীদের সুস্থ করার লড়াইয়ে। তিনি পুণের নাইডু হাসপাতালের সেবিকা বা নার্স ছায়া জগতাপ । অবশেষে এত অক্লান্ত সেবার ফল পেলেন তিনি শুক্রবার সন্ধেয়। খোদ দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ফোন করে ধন্যবাদ জানালেন ছায়াকে। ফোনে প্রধানমন্ত্রীর গলায় প্রশংসা শুনেই নিমেষে উধাও সব ক্লান্তি। চোখের কোণায় আনন্দে জল চিকচিক করছে। এমন মন ভালো করা খবর মিলেছে খোদ প্রধানমন্ত্রীর থেকে।  খবরের সত্যতা স্বীকার করেছে পুণে মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশনও। 

মারাঠি ভাষায় কথোপকথনের শুরুতেই মোদি তাঁর সুস্থতার বিষয়ে খোঁজখবর নে। তারপর জানতে চান, রোগের বিরুদ্ধে লড়ার সময় নিশ্চয়ই তাঁর পরিবার প্রথমে আতঙ্কিত হয়েছিলেন ছায়ার সুস্থতা নিয়ে! কী করে সেই ভয় কাটালেন? উত্তরে ছায়া অকপটে জানান, তাঁর বাড়ির লোক তাঁকে নিয়ে যথেষ্ট উদ্বিগ্ন ছিলেন। তিনি ক্রমাগত পরিবারকে বুঝিয়ে শান্ত করেন।

এরপরেই প্রধানমন্ত্রী তাঁকে জিজ্ঞেস করেন, হাসপাতালে ভর্তি রোগীরা কি অতিরিক্ত আতঙ্কিত? ছায়া তাঁকে জানান, তাঁরা রোগীদের বোঝানোর চেষ্টা করছেন, পরীক্ষার ফলাফল নেগেটিভই বেরোবে। অযথা ভয় পাবার কোনও কারণ নেই। হাসপাতালের বাকি কর্মীরাও রোগীদের মনোবল বাড়ানোর চেষ্টা করছেন স্বাভাবিক কথাবার্তা বলে।

এর পরেই প্রধানমন্ত্রী গলায় সুর কুর্নিশের, জগতাপকে তাঁর নিষ্ঠা ও সেবার জন্য আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, “আপনার মতো লক্ষ লক্ষ নার্স, প্যারামেডিক্যাল স্টাফ, চিকিৎসক দেশের সেবায় নিয়োজিত। আপনাদের সবাইকে কুর্নিশ।”

Follow Me:

Related Posts