রাজনীতি রাজ্য

হাতি এখন কাদায় পড়েছে , সর্বদলীয় বৈঠক প্রসঙ্গে বললেন অধীর চৌধুরী

Bangla 24×7 Desk : সর্বদলীয় বৈঠকের প্রকৃত উদ্দেশ্য কি তা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন বহরমপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ তথা কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরী । নবান্নের সভাঘরে মুখ্যমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠক প্রসঙ্গে অধীর চৌধুরী বলেন , ” বাংলার হাতি এখন কাদায় পড়েছে । তাই মুখ্যমন্ত্রী বিরোধীদের বৈঠকে আমন্ত্রন করেছেন । ”

প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন , ” হাতি কাদায় পড়লে সহানুভুতি পাওয়ার কথা । কিন্তু এখন সব লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে । তাই সর্বদলীয় বৈঠকে সব দলের প্রতিনিধিদের ডেকে কমিটি গড়ে বোঝানোর চেষ্টা চলছে যে লণ্ডভণ্ডের দায় কারোর একার নয় ” ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , মুখ্যমন্ত্রীর ডাকা সর্বদলীয় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের কংগ্রেস নেতারাও । বুধবার সর্বদলীয় বৈঠকের পর শাসক দল প্রস্তাব দেয় করোনা ইস্যু ও আমফান মোকাবিলায় একটি কমিটি গঠন করা হবে । সেই কমিটির মাথায় থাকবেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় । তাঁর সাথে কমিতিতে থাকবেন সুজন চক্রবর্তী , দিলীপ ঘোষ সহ অন্য সকল বিরোধী দলের নেতৃত্ব বর্গ ।

মুখ্যমন্ত্রীর সর্বদলীয় বৈঠকে প্রতিনিধি পাঠানোর ব্যপারে সবুজ সঙ্কেত দিয়েছিলেন বর্তমান প্রদেশ সভাপতি সোমেন মিত্র । কিন্তু অধীর চৌধুরী যে সোমেন মিত্রের এই সিদ্ধান্তের সাথে সহমত পোষণ করেননি তা কিন্তু তাঁর কথাতেই স্পষ্ট। একই মতবিরোধ দেখা গিয়েছে বিজেপির অন্দরেও । মুরলীধর সেন স্ট্রীটের অনেক নেতাই দিলীপ ঘোষের মুখ্যমন্ত্রীর সর্বদলীয় বৈঠকে যাওয়াটা মেনে নিতে পারেননি ।কারণ হিসাবে বলা হয়েছে , তৃণমূল , সিপিএম এবং কংগ্রেস মিলে ঐ বৈঠকে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের সমালোচনা করেছে আর সেটা তাঁকে ওখানে বসে শুনতে হয়েছে । দিলীপ ঘোষের কথা খুব বেশী প্রচার পায়নি ।

কংগ্রেস নেতা অধীর রঞ্জন চৌধুরীর এই মন্তব্যের সমালোচনা করে তৃণমূলের এক নেতা ঘনিষ্ঠ মহলে জানান , ” পশ্চিমবঙ্গ সহ সারা দেশের বেশীরভাগ জায়গাতে কংগ্রেস নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে । দলের অস্তিত্বহীনতার জন্য অধীর চৌধুরীর মধ্যে হতাশা জন্ম নিয়েছে । তার থেকেই উনি এই সব বলছেন ” ।

Follow Me:

Related Posts