রাজ্য

পুলিশ ও ব্যাঙ্কের উদ্যোগে অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুললেন দৃষ্টিহীন মহিলা

Bangla 24×7 Desk : লক ডাউনে প্রকাশ পেল মানবিক রূপ । নিজ উদ্যোগে গাড়ি করে ব্যাঙ্কের শাখায় নিয়ে গিয়ে টাকা তোলার পরে আবার প্রতিবন্ধী মহিলাকে বাড়িতে পৌঁছে দিয়ে গেল শক্তিগড় থানার পুলিশ। কোভিড – ১৯ ভাইরাস সংক্রমণ বিশ্ব জুড়ে মহামারীর আকার ধারণ করায় সারা দেশে ট্রেন চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বাস পরিষেবাও পুরোপুরি চালু হয়নি। সেই কারণে অনেকে জরুরি প্রয়োজনে বাইরে যেতে পারছেন না। 

জানা গেছে , পূর্ব বর্ধমানের জোতরাম এলাকার বাসিন্দা দীনেশচন্দ্র মিদ্দা এবং ভারতী দেব মিদ্দা । তাঁরা স্বামী – স্ত্রী কেউই দেখতে পান না। তার উপরে দীনেশচন্দ্র মিদ্দার হৃদযন্ত্রের সমস্যা রয়েছে। রেশনে চাল, ডাল পেলেও প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা তুলতে যেতে না পারায় চরম অসুবিধায় পড়েন ঐ প্রতিবন্ধী দম্পতি।

শক্তিগড়ে শ্বশুরবাড়ি হলেও ভারতী দেব মিদ্দার অ্যাকাউন্ট রয়েছে যাদবপুর এলাকার সন্তোষপুরে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখায়। ওখানেই তাঁর বাপের বাড়ি। ওই অ্যাকাউন্টে তাঁর প্রতিবন্ধী ভাতার টাকা ঢোকে প্রতি মাসে। লকডাউনের ফলে সন্তোষপুরে যেতে পারেননি। 

ভারতী দেব মিদ্দা ফোনে শক্তিগড় থানার ওসি কুণাল বিশ্বাসের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তাঁকে সমস্যার কথা জানান। থানার ওসিও মন দিয়ে গোটা বিষয়টি শোনেন। তারপর তিনি পূর্ব বর্ধমানের বড়শুলে একটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের শাখার ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

শক্তিগড় থানার পুলিশ ভারতী দেবীকে নিজেদের গাড়িতে করে ব্যাঙ্কে নিয়ে যায়। ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ তাঁর আধার লিঙ্ক করে এবং কেওয়াইসি জমা করে ব্যাঙ্কে তা আপডেট করে নেন। তারপরে ভারতী দেব মিদ্দা প্রয়োজনীয় টাকা তুলতে পারেন। এ ব্যাপারে পুলিশের পাশাপাশি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন ব্যাঙ্কের কর্মীরাও।