দেশ রাজ্য

পথে নামা পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে রাজ্য গুলির কোর্টেই বল ঠেলল শীর্ষ আদালত

Bangla 24×7 Desk : করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের জেরে দেশ জুড়ে আগামী ১৭ ই মে পর্যন্ত লক ডাউন জারি হয়েছে । লক ডাউনের জেরে মানুষের রুজি রোজগার সব বন্ধ । বাধ্য হয়ে মানুষ এখন আর্থিক সঙ্কট ও অন্ন সংস্থানের তাড়নায় ভুগছেন । দেশ জুড়ে বিভিন্ন পরিযায়ী শ্রমিকরা প্রাকৃতিক দুর্যোগ , প্রতিকূল পরিবেশকে সরিয়ে রেখে লক ডাউনের মধ্যে বাড়ি ফেরার জন্য ছোটাছুটি করছেন । এর মধ্যে কেউ কেউ পায়ে হেঁটে , আবার কেউ কেউ সাইকেলে চেপে বাড়ি ফেরবার চেষ্টা করছেন । কিন্তু এই লক ডাউনের মধ্যেও পরিযায়ী শ্রমিকদের দিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে রাজ্য গুলিকে দায়িত্ব নিয়ে হবে । এমনটাই জানিয়েছেন দেশের শীর্ষ আদালত ।

রাস্তায় হাঁটা পরিযায়ী শ্রমিকদের খাদ্যের ব্যবস্থা , পানীয় জলের ব্যবস্থা কেন্দ্রীয় সরকারকে কোর্টে হবে । এই মর্মে সুপ্রিম কোর্টে একটি আবেদন জমা পড়ে । তাঁর পরিপ্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালত জানিয়েছে , রাস্তায় হেঁটে যাওয়া পরিযায়ী শ্রমিকদের উপর নজর রাখা আদালতের পক্ষে কখনই সম্ভব নয় । এই ব্যপারে দায়িত্ব নিতে হবে রাজ্য সরকার গুলিকে ।

এই প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের জারি করা একটি বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে , পরিযায়ী শ্রমিকদের দিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে রাজ্য গুলিকে দায়িত্ব নিয়ে হবে । আগে নিশ্চিত করতে হবে যে কোন ভাবেই পরিযায়ী শ্রমিকরা যেন ঝুকি নিয়ে হেঁটে , রেল লাইন ধরে বাড়ি ফেরার চেষ্টা না করেন । তাঁদের খাদ্যের ব্যবস্থা , পানীয় জলের ব্যবস্থাও রাজ্য সরকার করবে । এমন কথা বলেই পরিযায়ী শ্রমিকদের বোঝাতে হবে ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , মহারাষ্ট্রের পরিযায়ী শ্রমিকদের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা উল্লেখ করে আইনজীবী অলোক শ্রীবাস্তব তাঁর আবেদনে বলেন , ” রাস্তায় নামা পরিযায়ী শ্রমিকদের নজরে রেখে তাঁদের খাদ্যের ব্যবস্থা , পানীয় জলের ব্যবস্থা কেন্দ্রীয় সরকারকে করার নির্দেশ দিক আদালত ” ।

কেন্দ্রের পক্ষে সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা জানান , “পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরবার জন্য প্রয়োজনীয় পরিবহনের ব্যবস্থা করেছে কেন্দ্র”। তিনি আরও বলেন , ” রাজ্য সরকার গুলির সাথে পরিযায়ী শ্রমিকদের চুক্তিতে বলা হয়েছে সকল পরিযায়ী শ্রমিক তাঁদের বাড়ি ফিরতে পারবেন । কিন্তু তাঁরা অপেক্ষা না করে নিজেরা হাঁটতে শুরু করেছেন ” ।

Follow Me:

Related Posts