রাজ্য

সোশ্যাল মিডিয়াতে আলাপ, সেখান থেকেই বিয়ের কথা, কিন্তু বিয়েতে পাত্র না আসায় আত্মঘাতী পাত্রী

Bangla24x7 Desk : পাত্রের কথা মত বিয়ের দিন ঠিক করা হলেও কথামতো বিয়ের মণ্ডপে আসেনি বর । সেই শোক সহ্য করতে না পেরে আত্মঘ্যাতি সদ্য উচ্চমাধ্যমিক দেওয়া উত্তীর্ণ পাত্রী । ঘটনাটি ঘটে , উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ শহরের কাঞ্চনপল্লির এলাকাতে । পাত্রীর পরিবার পাত্রের বিরুদ্ধে থানাতে অভিযোগ দায়ের করেন ।

মৃতার বাবার মাণিক পাসোয়ানের অভিযোগ, তিনি তার মেয়ের বিবাহ ঠিক করেছিলেন ”তারকেশ্বরের বাসন ব্যবসায়ী পলাশ কুণ্ডুর সঙ্গে । পাত্রের দাবি মতো তিন লক্ষ টাকা পণের মধ্যে দেড় লক্ষ টাকা ধার করে দিয়েছিলাম । বাকি টাকা বিয়ের পরে দেওয়ার কথা ছিল । তাতে সম্মতিও দিয়েছিলো পাত্র এবং তার পরিবার । তাদের কথা মতো , বৃহস্পতিবার বিয়ের সমস্ত রকম আয়োজন করে পাত্রের পথ চেয়ে অপেক্ষায় রইলাম। কিন্তু শেষপর্যন্ত বর বিয়েতে এলোনা । বর না আসার যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করে বসলো মেয়ে । মৃতার মা মীরাদেবী বললেন , ছেলের কথামতো সমস্তরকম দাবী মেনে বিয়ের দিন ঠিক করা হয়েছিল । আর তাছাড়া দুজন একে অপরকে ভালোও বাসত । অনেকদিনের পরিচয় ছিল আমার মেয়ের সাথে আর তার পরেও এইভাবে চিরকালের মতো হারিয়ে যেতে হল আমার ,মেয়েকে ।  

স্থানীয় সূত্রের খবর , অনেকদিন আগেই ফেসবুকে দুজনের পরিচয় হয় । এবং সেখান থেকে দুজনের প্রেমের সম্পর্ক তৈরি হয় । দুই পরিবারের মত নিয়েই বিয়ে ঠিক হয় । বিয়ের আগে পাত্র পলাশ পাত্রী রাখীকে ফোন করে জানায় যে সে তাকে বিয়ে করতে পারবেনা । সেই ফোন কল আসার পরে এমন বিরহে ভেঙে পরে আঠারো বছরের রাখী । থাকতে না পেরে গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যা করে বসলো । সেই অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও সেখানে তার মৃত্যু হয় ।

Follow Me:

Related Posts