দেশ

বন্যপ্রাণী সংরক্ষণে কৃত্রিম স্থলভাগ কাজিরাঙ্গায়

Bangla 24×7 Newsdesk: আমফানে ভেঙেছিল দক্ষিণ, এখন উত্তর ভাসছে অতি বৃষ্টিতে। বন্যা কেড়েছে হাজার হাজার মানুষের আশ্রয়। বাদ পড়েনি বন্যজীবরাও। আশ্রয় হারিয়ে কখনও ঢুকেছে লোকালয়ে কখনও বা যম দূয়ারে। অতি বৃষ্টির ফলে অসম সহ একাধিক রাজ্য ও জেলা জলের তলায়।

পরিস্থিতির অবনতি ঘটছে প্রতিটা সূর্য ডোবার সাথে সাথেই। আজ পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী, কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্যে বন্যপ্রানী দের অবস্থা খুবই মর্মাহত। মারা গেছে প্রায় ১০৮ টি বন্যপ্রাণী।

বন্য প্রানীদের বন্যার সময় প্রায়ই আশ্রয়ের ঘাটতিদেখা যায়। ফলে অকালেই সলিল সমাধি হয় বেচারা প্রাণীদের।

১৯৯০ সালে ১১১টি কৃত্রিম দ্বীপের মতো উঁচু স্থলভূমি তৈরি করা হয়েছে কাজিরাঙ্গায়। ২০১৯ সালে আরো ও ৩৩টি তৈরি হয়েছে। তাতেও বন্য প্রানীদের আশ্রয় পর্যাপ্ত নয়। কেন্দ্রের সঙ্গে অসম সরকারের একটি বৈঠকে স্থির হয় কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্যে আরোও একটি ৩২ কিলোমিটার দীর্ঘ কৃত্রিম স্থলভাগ তৈরি করা হবে। আশা করা যায় এর ফলে বন্যপ্রাণীদের আশ্রয় এর ঘাটতি কমবে।

ফি বছরে বন্যা দূর্গত প্রানীরা জঙ্গল ছেড়ে কারবি পাহাড়ে যাওয়ার চেষ্টা করায় ৩৭ নম্বর জাতীয় সড়কে প্রায়ই দূর্ঘটনায় প্রাণ হারায়। নতুন স্থল ভূমি তৈরির ফলে বন্যপ্রাণীরা উপকৃত হবে বলে আশাবাদী পশুপ্রেমিকরা।

Follow Me:

Related Posts