রাজনীতি রাজ্য

করোনা মোকাবিলায় নদীয়ার শান্তিপুরে যজ্ঞের আয়োজন , যজ্ঞাহুতি দিলেন রানাঘাটের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার

Bangla 24×7 Desk : করোনা আতঙ্কে কাঁটা গোটা দেশ । মারণ ভাইরাসের কবল থেকে রক্ষা পায়নি এই রাজ্যও । করোনা পরিস্থিতিতে এই সঙ্কট থেকে মুক্তির উপায় কি সেই সম্পর্কে বিজেপির কর্মী সমর্থকেরা নদীয়ার শান্তিপুরের নৃসিংহপুরে গঙ্গার পাড়ে আয়োজন বিরাট যজ্ঞের আয়োজন করেছিলেন । এই যজ্ঞের পরামর্শদাতা ছিলেন রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার । যজ্ঞাহুতি দেন জগন্নাথ সরকার স্বয়ং l যজ্ঞস্থলে হাজির ছিলেন একাধিক বিজেপি কর্মী সমর্থক। সারা বিশ্বে যেখানে মারণ ভাইরাস করোনার টীকা আবিস্কারের জন্য প্রাণপণ চেষ্টা করে চলেছেন তাবড় তাবড় গবেষকরা সেখানে এই ঘটনায় বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের এমন কুসংস্কারচ্ছন্ন মনোভাবকে ঘিরে প্রশ্ন উঠছে ।

রানাঘাট লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার দাবি করেন , ” প্রাচীন ভারতে মুনি ঋষিরাই ছিলেন প্রকৃত বিজ্ঞানী। যজ্ঞস্থলে সৃষ্টি বেদির উপরে অঙ্কিত ছক থেকেই আবিষ্কার হয়েছে জ্যামিতি এবং ত্রিকোণমিতির । আধুনিক বিজ্ঞান অনেক আধুনিক হলেও এখনও প্রাচীন রীতি নীতি নিয়ে চর্চা হয় ।

তবে এমন কুসংস্কারচ্ছন্ন মনোভাবকে ঘিরে প্রশ্ন ওঠার পরেও তাতে বিশেষ আমল দিতে একেবারেই রাজি নন সাংসদ । তিনি বলেন , ” সকল রাজনৈতিক দল নীরাবতা পালন করেন । যজ্ঞের মাধ্যমে নীরবতা পালন করা হয় । করোনা সঙ্কট থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য এই যজ্ঞের আয়োজন । এছাড়া লাদাখে ভারতের কুড়ি জন বীর জওয়ানদের শহীদ হওয়ায় তাঁদের আত্মার শান্তির উদ্দেশ্যেও এই যজ্ঞের আয়োজন। ”

এর পাশাপাশি তাঁর সমালোচকদের একহাত নিয়েছেন বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার । তিনি জানিয়েছেন , ” অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে তিনি কোনও অপরাধ করেননি । একে যারা ভ্রান্ত বলছেন তাঁরা তাঁদের অজ্ঞতার পরিচয় দিয়েছেন ” ।

Follow Me:

Related Posts