দেশ রাজনীতি

সরকার পড়ে যাওয়ার আশঙ্কায় তোলপাড় রাজস্থান কংগ্রেস , বিধায়কদের সরানো হল রিসর্টে

Bangla 24×7 Desk : করোনা আবহের মধ্যে আবারও বিধায়ক কেনাবেচার আশঙ্কা । রাজ্যসভার নির্বাচনের প্রাক্কালে এই ঘটনা ঘিরে তোলপাড় জাতীয় রাজনীতির ময়দান । তবে এবার তোলপাড় ভারতের মরুরাজ্য রাজস্থান । একদিকে কয়েকদিন আগেই যখন দুই বিধায়কের ইস্তফার পর গুজরাতের বাকি কংগ্রেস বিধায়কদের ‘সুরক্ষিত’ রাখতে যখন রাজস্থানের বিভিন্ন রিসর্টে রাখা হয়েছে ঠিক তখনই আবারও শিরোনামে উঠে এল রাজস্থান কংগ্রেস । টাকার লোভ দেখিয়ে আবারও কেনাবেচার মতো খেলার কথা তুলে রাজ্যের দুর্নীতি দমন শাখার কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে রাজস্থান কংগ্রেস ।

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট বলেন , ” বিধায়ক প্রতি ২৫ থেকে ৩০ কোটি টাকার টোপ এবং পদের লোভ দেখানো হচ্ছে। বিধায়কদের নিরাপদ আশ্রয়ে রাখতে দিল্লি-জয়পুর হাইওয়ের ধারে শিবভিলা নামক একটি রিসর্টে সরানো হয়েছে । ” যদিও কংগ্রেস কোন একটি নির্দিষ্ট রাজনৈতিক দলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেনি ।

আগামী ১৯ শে জুন রাজস্থানের তিনটি রাজ্যসভা আসনে নির্বাচন। সমীকরণ বলছে দুটিতে কংগ্রেস এবং একটিতে বিজেপির জয় নিশ্চিত। রাজস্থানের ভোটে ১০১ জন কংগ্রেস প্রার্থী জিতেছিলেন। ভোটের পর মায়াবতীর দল বিএসপির টিকিটে জেতা ৬ জন কংগ্রেসে যোগ দেন। রাজস্থানে কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ১০৭। অন্যদিকে বিজেপির রয়েছে ৭২ বিধায়ক। সেইসঙ্গে আরও ৬ বিধায়ক রয়েছে তাঁদের দিকে।

রাজস্থান বিধানসভার মুখ্য সচেতক তথা কংগ্রেস নেতা মহেশ যোশী রাজ্যের দুর্নীতি দমন শাখাকে চিঠি দিয়ে লিখেছেন , “ গুজরাত , মধ্যপ্রদেশ, কর্ণাটকের মতো রাজস্থানেও বিধায়ক কেনার চেষ্টা হচ্ছে। গণতান্ত্রিক পথে নির্বাচিত সরকার ফেলে দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। আমাদের দলীয় বিধায়ক এবং কংগ্রেস সমর্থিত সকল নির্দল বিধায়কদের অর্থ ও পদের লোভ দেখিয়ে দিয়ে কেনার চেষ্টা হচ্ছে। ” বুধবার মাঝরাতে দলীয় বিধায়কদের সঙ্গে দেখা করতে শিবভিলা রিসর্টে যান কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালা । দফায় দফায় বৈঠক করেন তিনি।

Follow Me:

Related Posts