দেশ

” পুরীতে রথযাত্রায় অনুমতি নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পুনর্বিবেচনা দরকার ” , মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েককে চিঠি পুরীর রাজার

Bangla 24×7 Desk : করোনার আবহে কার্যত বিপর্যস্ত গোটা দেশ । সংক্রমণ এড়াতে বারবার প্রশাসনের তরফে জনসমাগম করতে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে । করোনা অতি মহামারীর মধ্যে পুরীতে যাতে রথযাত্রা না হয় , সেজন্য একটি পিটিশন জমা পড়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। রথযাত্রা স্থগিত করার জন্য সুপ্রিম কোর্টে ওড়িশা বিকাশ পরিষদ নামে এক সংগঠন পিটিশন দাখিল করেছিল । পিটিশনে বলা হয়েছিল , এবার রথযাত্রা হলে লক্ষ লক্ষ মানুষ সংক্রমিত হবেন। কারণ প্রায় ১০/১২ দিন ধরে চলা পুরীর রথযাত্রা উৎসবে প্রায় ১০ লক্ষ মানুষের সমাগম হয় । এই পরিস্থিতিতে যা অত্যন্ত বিপদজ্জনক । ইতিমধ্যেই পুরীর রথযাত্রা প্রসঙ্গে রায়দান করেছেন সুপ্রিম কোর্ট ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , এই বছর আগামী ২৩ শে জুন পুরীতে রথযাত্রা হওয়ার কথা ছিল। সুপ্রিম কোর্ট রায় দিয়েছিল , এই বছর পুরীতে রথযাত্রায় কোনও জন সমাগম হবে না। কোনও আড়ম্বর নয় ,শুধুমাত্র নিয়ম মেনেই হবে এই বছরের রথযাত্রা উৎসব। 

কিন্তু শীর্ষ আদালতের এই রায় মনঃপুত হয়নি পুরীর রাজা গজপতি দিব্য সিংহ দেবের । তিনি কোনভাবেই চান না যে জগন্নাথ দেবের রথযাত্রায় এতটুকু খামতি থাকুক । তাই তিনি উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েককে চিঠি লিখে বলেন , ” পুরীতে রথযাত্রায় অনুমতি পাওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করুন । কোন পরিস্থিতিতেই পুরীর রথযাত্রা বন্ধ রাখা সম্ভব নয় , দেশ , বিদেশের বহু মানুষ ইলেকট্রনিক্স ও ডিজিটাল মিডিয়ার মাধ্যমে এই উৎসব দেখার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করে থাকেন । উৎসব বন্ধ মানে ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত দেওয়া ,যেটা কখনই কাম্য নয় ” ।

শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি এস এ বোবদে মন্তব্য করেন , “ আমরা যদি রথ যাত্রায় অনুমতি দিই তাহলে প্রভু জগন্নাথ আমাদের ক্ষমা করবেন না ” । আদালতের রায়কে সম্মান জানানো নাকি পুরীর রাজপরিবারের চাপ এই ডামাডোলের মধ্যে উড়িষ্যার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক কি সিদ্ধান্ত নেন সেটাই এখন দেখার বিষয় ।

Follow Me:

Related Posts