খেলা ফুটবল মহানগর রাজ্য

নিভে গেল “প্রদীপ “ মৃত্যুর সাথে লড়াইয়ে হার মানলেন পি কে ব্যানার্জি

Bangla 24×7 Desk : অবশেষে নিভে গেল “প্রদীপ “ । দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ থাকার পর অবশেষে মৃত্যুর সাথে লড়াইয়ে হার মানলেন কিংবদন্তি ক্রীড়া ব্যাক্তিত্ব প্রদীপ কুমার ব্যানার্জি । আসল নাম নয়  ভারতীয় ফুটবল তাঁকে চিনত পি কে ব্যানার্জি নামেই । ফুটবলার থেকে কোচ ভারতীয় ফুটবলে সব ক্ষেত্রেই তাঁর অবদান ছিল অনস্বীকার্য । কোচ হিসেবে ভারতীয় ফুটবলে জন্ম দিয়েছেন একাধিক দিক পাল ফুটবলারের ।

১৯৩৬ সালের ২৩ শে জুন জলপাইগুড়ি জেলায় জন্মগ্রহণ করেন প্রদীপ কুমার ব্যানর্জি। ফুটবল এবং পি কে ব্যানার্জি ছিল একই মুদ্রার দুটি দিক । তাঁর রক্তের শিরা শিরায় বইত ফুটবল । মাত্র উনিশ বছর বয়সে ১৯৫১ সালে বিহারের হয়ে সন্তোষ ট্রফিতে খেলার সুযোগ পান ভারতীয় ফুটবলের এই প্রতিভাবান স্ট্রাইকার। ১৯৫৪ সালে কলকাতায় চলে আসেন পি কে ব্যানার্জি ।

কলকাতায় এসে এরিয়ান ক্লাবে যোগ দেন পি কে ব্যানার্জি । এর পর ১৯৫৫ থেকে ১৯৬৭ সাল পর্যন্ত ইস্টার্ন রেলের হয়ে খেলেছেন । ইস্টার্ন রেলে যোগ দিয়ে চাকরি জীবন সুনিশ্চিত করেন তিনি। তিনি ১৯৫৫ সালে  মাত্র উনিশ বছর বয়সে জাতীয় দলে সুযোগ পান । কলকাতার দুই প্রধান মোহন বাগান ও ইস্ট বেঙ্গলে তিনি না খেলে সারা জীবন দাপটের সাথে  ইস্টার্ন রেলে খেলে গেছেন । তাঁর পায়ের জাদুতে ময়দানের ফুটবল ভক্তরা ছিলেন মুগ্ধ। অর্জুন পুরস্কারেও সম্মানিত হন এই প্রবাদ প্রতিম ফুটবল ব্যক্তিত্ব ।

তাই ভারতীয় ফুটবলে কিংবদন্তি তিনি। ফুটবল ইতিহাসের মাইলস্টোনের অপর নাম পিকে ব্যানার্জি। তাঁর প্রয়াণে ভারতীয় ফুটবল তো বটেই , বাংলার ফুটবল যে ক্ষতির সম্মুখীন হল তা পূরণ হবার নয়।

Follow Me:

Related Posts