দেশ

পেশায় ভ্যান চালক , কষ্টের সঞ্চয়ের টাকায় বিতরন করলেন খাদ্য সামগ্রী

Bangla 24×7 Desk : করোনার থাবায় দেশে এখন সঙ্কট জনক পরিস্থিতি । প্রায় প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা । এর মধ্যেই আবার করোনার মোকাবিলায় সংক্রমণ এড়াতে দেশে আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত লক ডাউন জারি হয়েছে । এই লক ডাউন পরিস্থিতিতে যাতে মানুষের কোনো রকম অসুবিধা না হয় সেই জন্য সরকার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করেছে ।

করোনা মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর ত্রান তহবিল হোক বা মুখ্যমন্ত্রীর স্টেট এমারজেন্সি রিলিফ ফাণ্ড – সব জায়গাতেই অনুদান দিয়েছেন দেশের তাবড় তাবড় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব থেকে শুরু করে ক্রীড়া ব্যক্তিত্ব ও চলচ্চিত্র জগতের ব্যক্তিত্বরা । কিন্তু এমন একজন ব্যক্তি ত্রান বিতরনে অংশ নিলেন তার জন্য কোন প্রশংসাই যথেষ্ঠ নয় ।

ত্রিপুরা রাজ্যের বাসিন্দা গৌতম দাস। পেশায় তিনি একজন ভ্যান চালক । ভ্যান চালিয়ে কতটুকুই বা রোজগার তাঁর !! ভ্যান চালিয়ে দিনে রোজগার করেন গড়ে ২০০ টাকা। তাতে কি হয়েছে !! মানুষের সাহায্য করতে গেলে অর্থনৈতিক সামর্থ্যটাই কিন্তু যথেষ্ঠ নয় । সেটাই কিন্তু করে দেখালেন ত্রিপুরার গৌতম দাস ।

ত্রিপুরার রাজধানী আগরতলার কাছে সাধুটিলা গ্রামের একটি ছোট্ট বাড়িতে থাকেন পঞ্চাশ বছর বয়সী গৌতম দাস । বেশ কয়েক বছর আগে মারা গিয়েছেন স্ত্রী। একার সংসার গৌতমের। তার মধ্যেও তিলতিল করে জমিয়ে ছিলেন প্রায় দশ হাজার টাকা। লক ডাউনের মধ্যে কষ্ট লোকজনের দুর্দশা সহ্য করতে না পেরে অবশেষে ভাঙলেন তাঁর সঞ্চয়। প্রায় আট হাজার টাকার চাল, ডাল, আলু কিনে বিতরন করে দিলেন ভ্যান চালক গৌতম দাস।

চাল , ডাল, আলু কিনে ভ্যানে করে বাড়ি বাড়ি সেই সব বিতরন করেছেন গৌতম দাস । গৌতম বলেছেন , “জিনিসের তো অনেক দাম। কাজ করে খেটে রোজগার করে এবেলা খেলে ওবেলা খেতে হয় । আমার যদি আরও সামর্থ থাকত তাহলে আরও মানুষের কাছে চাল-ডাল পৌঁছে দিতে পারতাম।”

গৌতম দাসের এমন কাজে প্রশংসার বন্যা বইছে । তিনি দেখিয়ে দিলেন মানবিক মন ও মানুষকে সাহায্য করার মানসিকতা থাকলেই কিন্তু সব সম্ভব । সেটার জন্য অর্থনৈতিক সীমানা কিছুই নয় ।

Follow Me:

Related Posts