রাজ্য

পরিযায়ী শ্রমিকরা কাজে আসায় ডোমজুড়ের কারখানায় বিক্ষোভ , অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিল কর্তৃপক্ষ

Bangla 24×7 Desk : করোনা ভাইরাসের তাণ্ডবের দেশ জুড়ে মৃত্যু মিছিল বেড়েই চলেছে । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে লক ডাউনের পথে হেঁটেছে কেন্দ্রীয় সরকার । যার ফলে দেশের সর্বত্র শিল্প কল-কারখানা থেকে শুরু করে সরকারি , বেসরকারি সংস্থা সব জায়গাতেই অর্থনৈতিক বিপর্যয় ঘটেছে । কিন্তু এবার কারখানা খোলার পরেও সেখানে দেখা দিল শ্রমিক বিক্ষোভ । চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হাওড়ার ডোমজুড়ের জালান কমপ্লেক্সের একটি কারখানায় ।

জানা গেছে , প্রায় দুশো জন শ্রমিকের হাতের ছোঁয়ায় ঐ কারখানায় রেলের যন্ত্রাংশ তৈরি হয় । গত রবিবার উত্তর প্রদেশ থেকে এসে ছয় জন শ্রমিক ঐ কারখানায় কাজে যোগ দেন। তারপরেই উতপ্ত হয়ে ওঠে কারখানার পরিবেশ । উত্তর প্রদেশ থেকে আগত শ্রমিকদের কাজে বাধা দেন কারখানার বর্তমান শ্রমিকরা । তাঁরা দাবি করেন যে , আগত শ্রমিকদের চোদ্দো দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে । তার মধ্যে সংক্রমণ ধরা না পড়লে তবেই ঐ শ্রমিকরা কাজে যোগ দেবেন। কিন্তু মালিক পক্ষ তাঁদের সেই দাবি মানতে সম্পূর্ণ নারাজ ।

ঐ কারখানার ডিরেক্টর রাহুল খৈতান জানান, ঐ শ্রমিকদের সম্পর্কে পুরো তথ্য তাঁদের হাতে রয়েছে। তাই সন্দেহের কোনও কারণ নেই। তিনি বলেন , “ গোটা ঘটনা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। পরিস্থিতি অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। ” কিন্তু কারখানার শ্রমিকরা অনড় ।

কারখানার শ্রমিক পার্থ নাথ বলেন , “ আমরা কাউকে কাজে যোগ দিতে বাধা দিইনি । শুধু বলেছি , বাইরে থেকে আসা ঐ শ্রমিকদের চোদ্দো দিন কোয়ারেন্টাইনে রাখতে হবে। তার আগে ওঁরা যদি কাজে ঢোকে, তবে আমরা থাকবো না। ” কারখানার আরেক জন শ্রমিক গোপাল নস্কর বলেন , “ আমাদের নিরাপত্তার দিকটা তো ভাবতে হবে। ওদের থেকে যদি আমরা সংক্রমিত হই তখন কী হবে ? ”

বিক্ষোভের জেরে অনির্দিষ্টকালের জন্য কারখানার গেটে তালা দিল কর্তৃপক্ষ । ফলে কর্মহীন হলেন প্রায় দুশো জন শ্রমিক ।

Follow Me:

Related Posts