মহানগর রাজনীতি রাজ্য

২১ জুলাই শহীদ সমাবেশ : দলীয় নেতা-কর্মীদের বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জেনে নিন এক নজরে

Bangla 24×7 Desk : ২১ জুলাই শহীদ সমাবেশ উপলক্ষে বার্তা দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । করোনা ভাইরাসের প্রাক্কালে চিরাচরিত সেই উত্তেজনায় এবারে ছেদ পড়েছে । সংক্রমণ এড়ানোর জন্য সমস্ত রকম জনসমাগমের উপরে বিধিনিষেধ আরোপ হয়েছে । তাই দলীয় কর্মীদের ভার্চুয়ালি সমাবেশের মাধ্যমে বার্তা দিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো । কি বললেন তিনি জেনে নিন এক নজরে ।

আগামী ২১ মে আগামী বিধানসভা নির্বাচনের ফল প্রকাশ হবে । তারপরে একুশের সমাবেশ আরও বড় করে আয়োজন করা হবে । করোনা ভাইরাসের জন্য এবারে শহীদ সমাবেশ না হওয়ার জন্য খুব দুঃখিত ।

এর পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রী জানান , ” শুধু আগামী ২১ জুন নয় , তৃণমূল ক্ষমতায় আসলে আজীবন বিনামূল্যে রেশন পাওয়ার পাশাপাশি শিক্ষা ও স্বাস্থ্য পরিষেবা পাবেন । তিনি বলেন , বাংলা শাসন করবে বাংলার মানুষ , কোন বহিরাগত লোকজন নয় । কিছু লোক হিন্দু ও মুসলমানদের মধ্যে দাঙ্গা লাগানোর চেষ্টা করছে । কখনও রাজবংশি ও কামতাপুরীদের লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে । কখনও আদিবাসীদের সঙ্গে তফসিলিদের লাগিয়ে দেওয়া হচ্ছে। নোংরা রাজনীতি চলছে ।

রেল বেসরকারিকরণ হয়ে যাচ্ছে । করোনার নাম করে সংস্থার কর্মীদের ছুটি দিয়ে দেওয়া হচ্ছে । কোথাও কোথাও বেতনও কেটে নেওয়া হচ্ছে । বিজেপি একটা চোরেদের দল। ভোটের সময় টাকা দিয়ে ভোট কেনার চেষ্টা করে। মধ্যপ্রদেশ , কর্নাটকে টাকা দিয়ে সরকার ভেঙে দেওয়া হয়েছে ।

গুজরাত কি সব রাজ্যকে শাসন করার অধিকার নিয়েছে ? তা হলে আর নির্বাচন কমিশন থাকার দরকার কী। তুলে দিন। একটা দেশ একটাই রাজনৈতিক দল থাকুক। এই বিষয় ক্ষোভ প্রকাশ করেন তৃণমূল নেত্রী । সারাদেশে বেকারত্বের হার যখন ৪৫ শতাংশ বেড়েছে, তখন বাংলায় বেকারত্ব চল্লিশ শতাংশ কমে গেছে। বাংলায় ২ কোটি ৩৮ লক্ষ স্কলারশিপ দেওয়া হয়েছে।

কাজ করতে দিচ্ছে না । পদে পদে অপমান করছে । কত সহ্য করব । বামেরা যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন রোজ অত্যাচার করেছে। এখন বিজেপি কথায় কথায় অসম্মান করছে। কথায় কথায় চক্রান্ত করছে। কিন্তু আমি ভয় পাই না। আমি বন্দুকের সামনে দাঁড়িয়ে লড়াই করতে জানি। মনে রাখবেন মৃত বাঘের থেকে আহত বাঘ আরও ভয়ঙ্কর।

Follow Me:

Related Posts