মহানগর রাজনীতি রাজ্য

‘আপনার মুখে অন্ন তুলে দেওয়ার দায়িত্ব আমার’-অভিষেক, ফোন করলেই খাবার মেলার প্রতিশ্রুতি সাংসদের

Bangla 24×7 Desk : করোনা মোকাবিলায় রাজ্য কেন্দ্র দুই সরকার মোকাবিলা করতে ব্যস্ত।

কিছুদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশবাসীকে মোমবাতি বা আলো জ্বালিয়ে দেশকে এক হওয়ার কথা জানিয়ে দিয়েছিলো। সেরকম ভাবে দেশের জন্যে নতুন কোন আশার আলো দেখাতে পারে নি বলে বিরোধীদের অভিযোগ।

তবে অপরদিকে করোনা মোকাবিলার জেরে লকডাউনের  পরিস্থিতির কথা ভেবে  আজ সন্ধ্যে ৭ টা নাগাদ ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জী  নিজের ফেসবুক পেজে লাইভে আসেন। এবং তিনি তাঁর কেন্দ্রের জন্যে একাধিক নতুন ভাবনা নিয়ে আসেন। যার নাম দেন ‘কল্পতরু’। এই প্রকল্পের আওতায় বহু গরীব মানুষকে নিয়ে আসা হবে বলে সাংসদ জানিয়েছেন।

মূলত করোনা জেরে লকডাউনে বহু মানুষ সমস্যায় পড়ছে, নিত্যদিনের কাজ থেকে সব কিছুই আটকে পড়েছে। তাই সেসকল মানুষের  কথা ভেবে এই নতুন চিন্তা ‘কল্পতরু’। এই ‘কল্পতরু’র মধ্যে দিয়ে সাংসদ   ঘোষনা করেন,  আগামী  ১২ই এপ্রিল থেকে ২৩ শে এপ্রিল পর্যন্ত মোট বারোদিন ধরে ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের রোজ চল্লিশ হাজার গরীব মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দেওয়া হবে। এই কর্মসুচীতে কাজ  করবে  একুশটি  কমিউনিটি কিচেন টিম। চলতি মাসের আগামী ৯ ই এপ্রিল থেকে ফোনের মাধ্যেমে রেজিষ্ট্রিশেন করে নাম নথিভুক্ত করতে হবে ।নাম নথিভুক্ত করার জন্যে  সাংসদ একটি ফোন নম্বর চালু করেছেন। ফোন নম্বর টি চালু হবে সকাল আগামী ৯ ই এপ্রিল সকাল নটা থেকে । ফোন নম্বর টি হলো- ০৩৩-৪০৮৭৬২৬২।  এই নম্বরে ফোন করলে কমিউনিটি কিচেন টিমের সদস্যারা আপনার বাড়ির  ঠিকানা জেনে নিয়ে আপনার বাড়িতে খাবার পৌঁছে দেবে।  যারা ফোন করতে পারেন না তাঁরা স্বেচ্ছাসেবকদের কে জানালেও হবে।

এর পাশাপাশি তিনি রাজ্যের সবাইকে করোনা মোকাবিলা করার জন্যে যা যা করনীয় সেগুলোর কথা বলেছেন । সাংসদ অভিষেক ব্যানার্জী সবসময়ই পরিষ্কার থাকার কথা জানিয়েছেন, যদি হ্যান্ড স্যানিটাইজার না থাকে তাঁর পরিবর্তে সাবান ব্যবহারের কথাও বলেছেন , তবে অন্তত ২০ সেকেন্ড করে হাত ধোয়ার কথা বলেছেন । এর পাশাপাশি তিনি সবসময় সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার  কথা জানান। রোজ সময় করে হাল্কা শরীর চর্চার কথা ও বলেছেন। মাল্টিভিটামিন এর মতো যাবতীয় খাবার খাওয়ার কথা বলেছেন, যেগুলোর মাধ্যমে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা  বাড়াতে সাহায্য করতে পারে। তবে প্রসঙ্গত উল্লেখ করা যেতেই পারে তিনি করোনা মোকাবিলা করার জন্যে যা যা বলেছেন সবগুলো একজন চিকিৎসকের মতো কথা ।

পাশাপাশি তিনি কেন্দ্রের সরকারের সমালোচনা করে  বলেন  ‘থালা বাজানো বা  আলো জ্বালোনার মধ্যে দিয়ে করোনা মোকাবিলা করা যায় না। যদি পারেন তো খেটে খাওয়া মনুষের থালায় অন্ন তুলে দিয়ে  জীবনের আলো জ্বালানো কথা ভাবুন।’

Follow Me:

Related Posts