দেশ বিদেশ

ভারতের আর্থিক প্যাকেজ পাকিস্তানের মোট জিডিপির সমতুল্য , ইমরান প্রশাসনের সাহায্যের পরিপ্রেক্ষিতে জানালো নয়াদিল্লী

Bangla 24×7 Desk : করোনা কাঁটায় বিপর্যস্ত গোটা বিশ্ব । প্রতিদিন বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা । পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু মিছিলও । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে দেশ জুড়ে দীর্ঘমেয়াদী লক ডাউনের পথে এগিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার । দীর্ঘমেয়াদী লক ডাউনের ফলে দেশের ব্যবসা বাণিজ্য , শিল্প কারখানার উৎপাদন কার্যত শিকেয় । যার জেরে অর্থনীতির গ্রাফ ক্রমশ নিম্মমুখী । এই পরিস্থিতিতে সম্প্রতি করোনা মহামারী মোকাবিলায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান প্রস্তাব দিয়েছেন , প্রয়োজনে তাঁরা ভারতকে টাকা দিয়ে সাহায্য করবেন। তারই পরিপ্রেক্ষিতে ইমরান প্রশাসনকে কড়া ভাষায় বার্তা দিল নয়াদিল্লী । নয়াদিল্লীর তরফে জানানো হয়েছে , ” ভারতের করোনা আর্থিক প্যাকেজ পাকিস্তানের মোট জিডিপির সমতুল্য ” ।

ভারতের বিদেশমন্ত্রকের তরফে জানানো হয়েছে , ” পাকিস্তানের মনে রাখা উচিত যে ওদের ঋণের সমস্যা রয়েছে। ওদের জিডিপির ৯০ শতাংশ ঋণে জর্জরিত। আর আমাদের দেশের রিলিফ প্যাকেজ প্রায় পাকিস্তানের জিডিপি-র সমতুল্য । ” বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অনুরাগ শ্রীবাস্তব তাই বলেন , “দেশের বাইরে ক্যাশ ট্রান্সফারের চেয়ে নিজের দেশের লোককে টাকা দেওয়া এখন বেশি জরুরি। ইমরান খানের একদল ভাল উপদেষ্টা দরকার, যাঁরা সঠিক তথ্য ও পরামর্শ দিতে পারবে তাঁকে।”

ইমরান খান বৃহস্পতিবার পাক সংবাদমাধ্যমের একটি খবরের লিঙ্ক শেয়ার করে টুইট করেন। সেখানে তিনি ওই খবরকে ইঙ্গিত করেই পরপর টুইট করে লেখেন, “ ৮৪ শতাংশ ভারতীয় পরিবারের মাসিক আয় কমে এসেছে লক ডাউনের পর থেকে। ৩৪ শতাংশ ভারতীয় পরিবার এক সপ্তাহের বেশি খরচ চালাতে পারবে না , বাইরের কোনও রকম সাহায্য ছাড়া। আমি সেই সাহায্যের প্রস্তাব দিচ্ছি। ”

পাকিস্তানের আর্থিক পরিস্থিতি ও করোনার তীব্রতাই যে শুধু সঙ্কটে আছে তাই নয় , সে দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিতেও বড় সমস্যা ঘটতে পারে। সেনা শাসন জারি হতে চলেছে সে দেশে। এই পরিস্থিতিতে প্রতিবেশী দেশকে সাহায্য নয় , নিজের দেশের উন্নয়নই পাকিস্তানের লক্ষ্য হওয়া উচিত ।

Follow Me:

Related Posts