দেশ

চিনকে ফাঁদে ফেলতে ড্রোন বাহিনীর জন্য ইজরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র প্রয়োজন জানালো ভারতীয় সেনা

Bangla 24×7 Desk : লাদাখ সীমান্তে ভারত চিন সংঘাতের জেরে ফাটল ধরেছে দুই দেশের সম্পর্কে । বিভিন্ন প্রকার চিনা দ্রব্য বর্জন করার পাশাপাশি চিনের বিরুদ্ধে সম্মুখ সমরে ভারতীয় সেনা । বিভিন্ন পর্যায় বৈঠক করেও মেলেনি সমাধান সূত্র ।

সংঘাতের আবহে লাদাখ সীমান্তে চিনের উপর নজর রাখছে ইজরায়েল থেকে আনা হেরন ড্রোন। ১০ কিলোমিটার উপর থেকে লালফৌজের গতিবিধির খবর ভারতীয় শিবিরে পৌঁছে দিচ্ছে এই চালকবিহীন যানটি। এইবার একে সুসজ্জিত করার জন্য ইজরায়েলি ক্ষেপণাস্ত্র প্রয়োজন । এমনটাই জানিয়েছে ভারতীয় সেনা ।

কি কি সুবিধা রয়েছে এই অত্যাধুনিক চালক বিহীন যানটিতে ? এই ড্রোনে থাকবে এয়ার টু ল্যান্ড ক্ষেপণাস্ত্র, অ্যান্টি ট্যাঙ্ক মিসাইল, লেজার গাইডেড বম্ব। এই প্রকল্পের নাম দেওয়া হয়েছে ‘প্রজেক্ট চিতা’। এতে খরচ হবে প্রায় সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকা। চিনের পাশাপাশি ভবিষ্যতে জঙ্গি সংগঠনের গতিবিধির উপরে নজর রাখতে ব্যবহার করা হতে পারে এই ড্রোন । যদিও গোটা পরিকল্পনা বাস্তবায়িত করবে প্রতিরক্ষা সচিব অজয় শর্মার নেতৃত্বে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের হাই পাওয়ার্ড কমিটি ।

এছাড়া সব দিক থেকে চিনকে চাপে রাখতে প্রস্তুত হচ্ছে ভারতীয় সেনা বাহিনী । ভারতীয় নৌ বাহিনীর অস্ত্রভাণ্ডারে যোগ হচ্ছে সাবমেরিন ধ্বংসকারী আরও চারটি পি-৮আই বিমান । মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে আগামী বছর ভারতের হাতে আসবে চারটি পি-৮ আই বিমান। ২০২১ সালে এমন আরও ছ’টি বিমান কিনতে চায় দিল্লি । উপকূল এলাকায় নজরদারি শত্রুপক্ষের জাহাজ এবং সাবমেরিনের অবস্থান জানতে পি-৮আই বিমানগুলি ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য বিশেষভাবে তৈরি। 

Follow Me:

Related Posts