রাজ্য

প্রেমের পথে কাঁটা স্বামী , প্রেমিকের মদতে স্বামীকে ‘খুন’ করে পুঁতে দিল স্ত্রী , চাঞ্চল্য নন্দকুমারে

Bangla 24×7 Desk : আবারও রজ্যে মনুয়া কাণ্ডের ছায়া । প্রেমিকের মদতে স্বামীকে ‘খুন’ করে পুঁতে দিল স্ত্রী । চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব মেদিনীপুরের নন্দকুমারে । এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই শনিবার সকালে ফতেপুর গ্রামে অভিযুক্ত গৃহবধূর বাপের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় স্থানীয়রা।

জানা গেছে , প্রেমের পথে কাঁটা স্বামীকে সরাতে প্রেমিকের সাহায্যে বাপের বাড়িতে নিজের স্বামীকে খুন করে রান্নাঘরের মেঝেতে পুঁতে দিয়ে তাঁর উপড়ে সিমেন্ট দিয়ে ঢালাই করে দেয় আশমা বিবি । প্রায় ১৭ বছর আগে ধান্যঘরের বাসিন্দা শেখ নুর মহম্মদের সঙ্গে ফতেপুরের আশমা বিবির বিয়ে হয় । কিন্তু দুটি সন্তান থাকলেও শ্যামসুন্দরপুরের বাসিন্দা শেখ দুলালের সঙ্গে বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে আশমা বিবি । তাতে বাধা দেন স্বামী শেখ নুর মহম্মদ । এই নিয়ে গ্রামে সালিশি সভা বসলে সালিশি সভায় চূড়ান্ত হেনস্তার শিকার হয় সে । এমনটাই অভিযোগ আশমা বিবির। তারপরে আশমা ও তাঁর প্রেমিক মিলে বদলা নেবে বলে নুর মহম্মদকে হুমকি দিচ্ছিল ।

সোমবার বাপের বাড়ি থেকে শ্বশুর বাড়িতে ফিরে আসে আশমা। সকলকে জানায় তার স্বামী কাজে গিয়েছেন। এভাবে কয়েক দিন কেটে যাওয়ার পরে নুর মহম্মদ বাড়ি না ফেরায় শ্বশুর বাড়ির লোকজনের সন্দেহ হয়। তাকে জেরা করতে শুরু করে। কিন্তু তাঁর কথাতে অসঙ্গতি ধরা পড়ায় পুলিশে খবর দেন নুর মহম্মদের পরিজনেরা। পুলিশি জেরায় অসঙ্গতি থাকায় শুক্রবার প্রেমিক শেখ দুলালের মুখোমুখি বসিয়ে জেরা আশমা বিবিকে জেরা করেন তদন্তকারীরা । আর তারপরেই আসল সত্য প্রকাশ পায় ।

এরপরে পুলিশ আশমাকে নিয়ে শুক্রবার গভীর রাতে তাঁর বাপের বাড়িতে যায় । খুনের স্থল থেকে খুনের পরে দেহ কোথায় লুকিয়ে রাখা হয়েছিল সেই সব কিছু পুলিশকে দেখায় আশমা । এরপরে ম্যাজিস্ট্রেটের উপস্থিতিতে শনিবার দেহ সিমেন্টের ঢালাইয়ের আস্তরণ সরিয়ে বের করা হবে।

এই ঘটনার জেরে আশমার বাপের বাড়িতে ভাঙচুর চালান নিহতের পরিজনেরা। ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে আশমার মাকে আটক করেছে পুলিশ । পাশাপাশি এলাকায় মোতায়েন রয়েছে বিশাল পুলিশ বাহিনী ।

Follow Me:

Related Posts