দেশ

ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের বেতন মেটাতে হবে , কেন্দ্রকে স্পস্ট করে জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত

Bangla 24×7 Desk : দেশে করোনা পরিস্থিতি অত্যন্ত সঙ্কটজনক l প্রতিনিয়ত আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে বাড়তে প্রায় ষোল লাখের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে l সাথে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু মিছিল l তবে স্বস্তি দিচ্ছে সুস্থতার হার l

মহামারী আবহে দেশবাসীকে বাঁচাতে সামনের সারিতে দাঁড়িয়ে লড়াই করছেন চিকিৎসক , নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। অথচ তাঁদের একাংশই সময়মতো বেতন পাচ্ছে না। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের বেতন মেটাতে হবে l কেন্দ্রকে স্পস্ট করে জানিয়ে দিল শীর্ষ আদালত । যদিও কেন্দ্রের তরফে সঠিক সময় বেতন মেটাচ্ছে না কয়েকটি রাজ্য নাম করে বলা হয় l সেই কথা কানেই তুলতে চায়নি শীর্ষ আদালত। বিচারপতিরা পরিস্কার জানিয়েছেন , নির্দেশ মানছে না বলে চুপচাপ বসে থাকতে পারেন না আপনারা। আপনাদের ক্ষমতা আছে। সেটা প্রয়োগ করুন l

এদিন বিচারপতিরা স্পস্ট করে জানিয়ে দেন , স্বাস্থ্যকর্মীরা যাতে সময়ের মধ্যে বেতন পান , তা কেন্দ্রকে নিশ্চিত করতে হবে। রাজ্যগুলিকে নির্দেশ মানতে বাধ্য করুক কেন্দ্র। মামলার শুনানী রয়েছে আগামী ১০ ই আগস্ট। কেন্দ্রের পক্ষে সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতা আদালতে বলেন , ” তিনি কেন্দ্রের তরফে যুক্তি দিয়ে বলা চেষ্টা করেন যে, বেতন নিয়ে ইতিমধ্যে সার্কুলার পাঠিয়েছে কেন্দ্র। ” বিপক্ষের আইনজবীবী পাল্টা দাবি করে বলেন , সার্কুলার জারি করেও কোনও লাভ হয়নি। বহু ক্ষেত্রে বেতন আটকে আছে। এদিন কেন্দ্রের তরফে বেতন না মেটানোর জন্য মহারাষ্ট্র , কর্ণাটক ও ত্রিপুরার নাম করে বলা হয় l

গত ১৫ ই মে ইউনাইটেড রেসিডেন্ট ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে আদালতে মামলা করা হয়। আদালতে অভিযোগ জানানো হয় , কেন্দ্রের তরফে চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক নয়। আর তাঁরা কোয়ারেন্টাইনে থাকলে সেই দিনগুলিকে ছুটির দিন হিসাবে ধরে ১৪ দিনের বেতন কাটা হচ্ছে। এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে চিকিৎসকরা শীর্ষ আদালতে যান। সেই মামলার সঙ্গেই বেতন আটকে রাখার বিষয়টিও যুক্ত হয়। সেই ইস্যুতেই শুক্রবার সলিসিটার জেনারেল তুষার মেহতাকে ভর্ৎসনা করেন শীর্ষ আদালত l

Follow Me:

Related Posts