মহানগর রাজনীতি রাজ্য

দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার পরে প্রয়াত হলেন রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী অবনীমোহন জোয়ারদার

Bangla 24×7 Desk : দীর্ঘদিন লড়াই করেছেন অসুস্থতার সাথে । কিন্তু শেষ পর্যন্ত আর পারলেন না । জীবন মৃত্যুর লড়াইয়ে পরাজিত হলেন রাজ্যের প্রাক্তন কারামন্ত্রী অবনীমোহন জোয়ারদার । মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৭৯ বছর । বৃহস্পতিবার ভোররাতে কলকাতায় নিজের বাড়িতে প্রয়াত হন তৃণমূল কংগ্রেসের এই বর্ষীয়ান নেতা তথা কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক । টুইট করে শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।

দুঁদে আইপিএস অফিসার থেকে রাজনীতিতে যোগদান করে অল্প দিনের মধ্যে রাজ্যের তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্ভরযোগ্য তৃণমূল কংগ্রেসের একনিষ্ঠ সৈনিক হয়ে ওঠা – কেমন ছিল প্রয়াত এই মানুষটির জীবন ! আসুন জেনে নেওয়া যাক ।

২০১১ সালে তাঁকে বিধাননগর উত্তর কেন্দ্রের প্রার্থী করেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীকে হতাশ করেননি প্রাক্তন এই পুলিশ কর্তা। প্রথমবারই প্রতিপক্ষকে ধরাশায়ী করে বিধায়ক নির্বাচিত হন অবনীমোহন জোয়ারদার । তারপর ২০১৬ সালের নির্বাচনী লড়াইয়ে ফের তাঁর উপরই ভরসা রাখেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তৃণমূলের ভরা যৌবনে আবারও কৃষ্ণনগর উত্তর কেন্দ্রে থেকে জয়ী হন অবনীমোহন জোয়ারদার। তবে এবার পেলেন আরও বড় দায়িত্ব । মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবার দিলেন কারা দপ্তরের গুরুভার । অসুস্থতার কারণে খুব বেশি দিন সেই দায়িত্ব সামলাতে পারেননি। দেড় বছরের মধ্যেই মন্ত্রিত্ব থেকে অব্যহতি দেওয়া হয় তাঁকে। তাঁর পরিবর্তে কারা দপ্তরের দায়িত্ব পান কৃষ্ণনগর দক্ষিণ কেন্দ্রের বিধায়ক উজ্জ্বল বিশ্বাস ।

কলকাতাতে বাড়ি থাকলেও নিজের বিধানসভা এলাকা কৃষ্ণনগরের উকিল পাড়ায় ভাড়া বাড়িতে থেকে রাজনীতির কাজকর্ম করতেন। এলাকার বিধায়কের প্রয়ানের খবরে এলাকায় নেমেছে শোকের ছায়া । এই বর্ষীয়ান নেতা তথা কৃষ্ণনগর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক অবনীমোহন জোয়ারদারের মৃত্যুতে শোকপ্রকাশ করেছে তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব।

Follow Me:

Related Posts