দেশ

করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ থাকার শর্তেও কোভিড ওয়ার্ডে থাকতে হলো সুস্থ রোগীকে

Bangla24x7 Desk : করোনা আবহে গোটা দেশ আতঙ্কে কাটাচ্ছে । ঠিক  এর ই সুযোগ নিয়ে ভুয়ো চিকিৎসার অভিযোগ হায়দরাবাদের এক বেসরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে । করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ । ৫৫ বছর বয়সী ব্যাক্তিটির । ব্যক্তি পুঞ্জাগুট্টা পুলিশ স্টেশনে গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন হাসপাতালের বিরুদ্ধে । তিনি বললেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ শুধু ভুয়ো চিকিৎসা করেনি তার সাথে মাত্রাধিক টাকা বেশি নিয়েছে তাঁর কাছে থেকে ।

ব্যাক্তিটি হায়দরাবাদের বিজয় নগর কলোনির বাসিন্দা। নাম শ্রীধর সিং। পেশায় তিনি ছিলেন আইনজীবী । গত ২৮ জুলাই তাঁর মধ্যে জ্বর দেখা দেয় এবং তিনি নিজেকে দুর্বল মনে করেন । তাই তিনি সমাজিগুডার ডেকান হাসপাতালে ভর্তি হন । তাকে জানানো হয় তিনি কোভিড পজিটিভ । তাকে নিয়ে যাওয়া হয় করোনা ওয়ার্ডে । কিন্তু তিনি লক্ষ করলেন রবিবার তাঁর জ্বর নেই, তাঁর মধ্যে করোনার কোনো উপসর্গও নেই । এরপর আইনজীবী নিজে থেকেই তাঁর রিপোর্টটি দেখতে চান । তারপর তিনি তাঁর নিজের রিপোর্ট দেখেই অবাক চক্ষু চড়কগাছ । কারন তাঁর রিপোর্ট নেগেটিভ ছিল । শুধুশুধু বিনা কারনেই তিনি হাসপাতালে ছিলেন । ততদিনে হাসপাতালের বিল প্রায় ৬ লক্ষ টাকা হয়ে দাড়ায় । তারপরে তিনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ গোটা বিষয়টির প্রশ্ন করেন । কিন্তু কোনো জবাব না পাওয়াই তিনি পুলিশে গিয়ে জানালেন ।

 শ্রীধর সিংয়ের বক্তব্য, ‘‌‘আমার করোনা টেস্টের রিপোর্ট নেগেটিভ ছিল, কিন্তু আমাকে সেখানে জানানো হয় পজিটিভ । আমাকে রিপোর্ট দেখাইনি । জোড় করে কোভিড রোগীদের সাথে রাখা হয়েছিল । এরপরে এই ভুয়ো চিকিৎসা ৬ লক্ষ টাকার বিল আমাকে ধরিয়ে দেয় ।

Follow Me:

Related Posts