খেলা ফুটবল মহানগর রাজ্য

স্পনসর হিসেবে ‘শ্রী সিমেন্টের’ সাথে চুক্তি হতে চলেছে ইস্টবেঙ্গলের

Bangla 24×7 Desk : অবশেষে স্বপ্নপূরণ । দীর্ঘ ডামাডোলের পরে দেশের এক নং ফুটবল টুর্নামেন্ট আইএসএলে খেলবে ইস্ট বেঙ্গল । ইনভেস্টর হিসেবে ‘শ্রী সিমেন্টের’ সঙ্গে চুক্তি হতে চলেছে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের।

কোয়েস চলে যাওয়ার পর নতুন ইনভেস্টর পাওয়ার জন্য রীতিমতো চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিলেন ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। একটা সময় কথা হয়েছিল সিঙ্গাপুরের শিল্পপতি প্রসূন মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গেও। কিন্তু বিনিয়োগ করার আগে আইএসএল খেলার ব্যাপারে নিশ্চয়তা পেতে চেয়েছিলেন সিঙ্গাপুরের বাঙালি শিল্পপতি। যা দিতে পারেননি ইস্টবেঙ্গল কর্তারা। তাই পিছিয়ে যায় সেই আলোচনা । কিন্তু প্রসূন মুখোপাধ্যায়ের কোম্পানির সঙ্গে শ্রী সিমেন্টের পার্থক্য আছে ।

প্রসূন মুখোপাধ্যায়ের কোম্পানি সিঙ্গাপুরে হলেও শ্রী সিমেন্টের সদর দপ্তর কলকাতায়। ফলে ইস্টবেঙ্গল কর্তাদের পক্ষে সংস্থার কর্ণধারদের বোঝানো সম্ভব হয়েছে । হাতে ইনভেস্টর না এলে কিছুতে আইএসএল খেলার জন্য ছাড়পত্র পাওয়া যাবে না ।

কিন্তু সময় অনেক পেরিয়ে গেছে । ইনভেস্টর পাওয়ার পর ইস্টবেঙ্গল যদি আইএসএল খেলার সুযোগ পায় তাহলে আইএসএল খেলার জন্য যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হবে তা করতে রাজি আছে ‘শ্রী সিমেন্ট।’ যদি এই মরশুমে আর আইএসএল খেলা সম্ভব না হয় তাহলে এই মরশুমে আই লিগ খেলার মত খরচ করবে ইনভেস্টর ।

ক্লাবের জার্সির রঙ, লোগো এসব নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। শ্রী সিমেন্ট চাইছে চুক্তির পর ক্লাবের যাবতীয় কার্যকলাপ নিয়ন্ত্রণ করবে তারাই। ৭৬ ভাগ শেয়ার দেওয়া হবে শ্রী সিমেন্টকে। ক্লাবের হাতে থাকবে ২৪ শতাংশ শেয়ার। সব কিছু পাকা হয়ে যাওয়ার পরেচূড়ান্ত হওয়ার পথে আটকে রয়েছে ক্রিকেট। শ্রী সিমেন্টের কর্ণধাররা চাইছেন, ফুটবলের পাশাপাশি ক্রিকেট সহ ক্লাবের সব স্বত্ত্বও নিয়ে নিতে। তখন সিএবিতে থাকবেন শ্রী সিমেন্টের কোন প্রতিনিধি । শ্রী সিমেন্টের কর্ণধারদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিলেন ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের পক্ষে দেবব্রত সরকার এবং সৈকত গঙ্গোপাধ্যায়।    

Follow Me:

Related Posts