করোনা আপডেট বিদেশ

করোনা ভাইরাস সম্পর্কে চিনকে কড়া হুঁশিয়ারি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

Bangla 24×7 News : করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা পৃথিবী l করোনার আক্রমণে ইতিমধ্যেই প্রাণ হারিয়েছেন কয়েক হাজার মানুষ l ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে ইতালি , স্পেন , জার্মানি সহ ইউরোপের বিভিন্ন রাস্ট্র l এশিয়ায় ক্ষতিগ্রস্থ ভারতবর্ষ , চিন , ইরান সহ একাধিক রাস্ট্র l

করোনা ভাইরাস নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র – চিনের বাকযুদ্ধ আবারও চরমে উঠলো । এই বার বেজিংকে রীতিমতো হুঁশিয়ারি দিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের হুমকি, ” চিন যদি ইচ্ছাকৃত ভাবে এই ভাইরাস ছড়ায় তাহলে তার ফল ভাল হবে না একদম ” । মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলি পরীক্ষাগার গুলি ও রোগের প্রকোপ সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ করছেন।

যদিও আমেরিকায় ট্রাম্প বিরোধীদের বক্তব্য , করোনার সংক্রমণ রুখতে হোয়াইট হাউসের ব্যর্থতা ঢাকতে চিনের ঘাড়ে দোষ চাপাতে চাইছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। করোনাকে ” চিনা ভাইরাস ” বলে আক্রমণ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। পাল্টা জবাবে চিনের তোপ ছিল , মার্কিন সেনা বাহিনীর মধ্যে থেকেই এই ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়েছিল।

চিনের উহান শহরের নাম হয়তো অনেক মানুষের অগোচরে ছিল । কিন্তু করোনা ভাইরাসের দাপটে সেই উহান শহরের নাম এখন সকলেই জানা । এরই মধ্যে জানা গেল করোনা ভাইরাসের মূল উৎস হল চিনের উহান শহরের একটি ল্যাব । যাকে ঘিরেই যাবতীয় বিতক সৃষ্টি হয়েছে ।

লোকালয় থেকে দূরে জঙ্গলে ঘেরা একটি পাহাড়ের তলায় জলাশয় কাছে এই গবেষণাগার ৩২০০০ স্কোয়্যার ফুট জায়গা জুড়ে রয়েছে। চিনের ভাইরাস কালচার কালেকশনের কেন্দ্র এই গবেষণাগার। এটাই এশিয়ার বৃহত্তম ভাইরাস ব্যাংক। যেখানে ১৫০০০ ধরনের নমুনা নিয়ে পরীক্ষা নিরিক্ষা চলছে। ইবোলার মত ভাইরাস নিয়েও গবেষণা করে এরা। যেসব ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে সংক্রমণ ছড়াতে পারে, সেরকম ভাইরাস রয়েছে এই গবেষণাগারে।

সাংবাদিক বৈঠকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, ” এটা যদি চিনের ভুল হয় তো ঠিক আছে। কিন্তু চিন যদি জেনেশুনে অর্থাৎ ইচ্ছাকৃত ভাবে এই কাজ করে , তাহলে অবশ্যই তার ফল ভুগতে হবে ” । তবে চিনের বিরুদ্ধে কি ব্যবস্থা নেওয়া হবে , সে বিষয়ে কিছু স্পষ্ট করেননি তিনি। তবে তিনি বলেছেন , ” পূর্বতন ওবামা সরকার উহানকে যে আর্থিক সাহায্য প্রদান করত সেটা খুব তাড়াতাড়ি বন্ধ করে দেওয়া হবে ” ।

Follow Me:

Related Posts