দেশ

‘ রুলস অফ এনগেজমেন্ট ‘ পরিবর্তন করছে কেন্দ্রীয় সরকার ,পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে জওয়ানরা পূর্ণ স্বাধীনতায় সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন

Bangla 24×7 Desk : লাদাখে ভারতীয় জওয়ানদের উপর অমানবিক আক্রমনের জেরে শহীদ হয়েছেন ২০ জন জওয়ান । আর সেই ঘটনার জেরে ক্ষোভে ফুঁসছেন ভারতীয় নাগরিকরা। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে । কোথাও চিনা পণ্য পুড়িয়ে কোথাও বা চিনের পতাকা পুড়িয়ে চলছে বিক্ষোভ। চিনকে সমরে শিক্ষা দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন দেশের সর্বস্তরের মানুষ।

সীমান্তে চিনের এই বর্বর আক্রমনের জবাব দিতে তৈরি হচ্ছে ভারতীয় সেনা বাহিনী । সীমান্তে রণসজ্জার সাথে সাথেই ভারত – চিন এলএসিতে বদল আনছে কেন্দ্রীয় সরকার । সীমান্তে কর্মরত জওয়ানদের জন্য বদল আনা হচ্ছে ‘ রুলস অফ এনগেজমেন্ট ‘ নীতিতে । কিন্তু কি এই ‘ রুলস অফ এনগেজমেন্ট ‘ ! জেনে নিন ।

জানা গেছে , এতদিন পর্যন্ত সীমান্তে ভারত ও চিন দুই দেশের সেনা বাহিনী প্রকৃত নিয়ন্ত্রন রেখায় পরস্পরের মুখোমুখি হলেও আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করত না ভারতীয় সেনাবাহিনী। কিন্তু এবার সেই নিয়মে বদল এনে সেনা বাহিনীকে স্বাধীনতা দেওয়া হবে । অর্থাৎ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে ভারতীয় সেনা বাহিনীর জওয়ানরা পূর্ণ স্বাধীনতায় সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ।

তাই খুব স্বাভাবিক ভাবেই লাদাখ সীমান্তে চিনা লাল ফৌজের মুখোমুখি হলেও ভারতীয় সেনা বাহিনী আগ্নেয়াস্ত্র ব্যবহার করেনি । তাই একতরফা ক্ষমতা দেখানোর সুযোগ পেয়েছে চিন । আবার সীমান্তে আক্রমণ করলে কিন্তু এবারের এই পরিবর্তিত সিদ্ধান্তে মুখের উপর জবাব পাবে চিনা লাল ফৌজ তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না ।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য , সীমান্তে উত্তেজনা বাড়াতে যুদ্ধের আবহাওয়া তৈরি করছে চিন । রণসজ্জার তৎপরতা বৃদ্ধি করেছে তাঁরা । কিন্তু বসে নেই ভারতীয় সেনা বাহিনী । পাল্টা রণসজ্জা প্রস্তুত করছে ভারত । জানা গেছে , আকাশে একাধিক যুদ্ধ বিমান ওড়ার পাশাপাশি ভারতীয় বায়ু সেনার অত্যাধুনিক যুদ্ধ বিমান সুখোই, মিরাজ , জাগুয়ার কে ফরওয়ার্ড বেসে পাঠানো হয়েছে । ইট মারলে যে উল্টে পাটকেল খেতে হবে তা চিনা ফৌজকে ভালমতো বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত রয়েছে ভারতীয় সেনা বাহিনীর জওয়ানরা ।

Follow Me:

Related Posts