রাজনীতি রাজ্য

একুশের আগে বড় ধাক্কা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলা বিজেপিতে , ফের তৃণমূলে ফিরলেন জেলার ডাকসাইটে নেতা বিপ্লব মিত্র

সুমন ভৌমিক , দক্ষিণ দিনাজপুর : বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপি নেতা তথা সাংসদ সুকান্তর গড়ে বিজেপিকে জোর ধাক্কা তৃণমূলের । বিজেপি ছেড়ে ফের তৃণমূলে ফিরলেন একদা জেলার ডাকসাইটে নেতা বিপ্লব মিত্র। শুক্রবার দুপুর দেড়টায় কলকাতার তপসিয়ায় টিএমসি র দলীয় ভবনে এক সাংবাদিক সম্মেলনে তৃনমুলের মহাসচিব পার্থ চ্যাটার্জী বিপ্লব মিত্র ও তার ভাই প্রশান্ত মিত্রের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিয়ে ফের তাদের দলে ফিরিয়ে নিয়ে আসার অনুষ্ঠান পর্ব সারেন।

যদিও এই দলবদলের সময় যাকে বিগত লোকসভায় দলের তরফে মনোনয়ন দেওয়া নিয়ে মনোমালিন্যের জেরে তৃণমূল ছেড়ে তিনি বিজেপিতে গিয়েছিলেন। সেই অর্পিতা ঘোষকেও দলের পতাকা তুলে দেওয়ার সময় পার্থ বাবুর ডাকে লাইনে দাঁড়াতে দেখা যায় । যদিও ফের এক বছর এক মাস সাত দিন পর বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে ফেরাকে বিপ্লব মিত্র তার নিজের ঘরে ফেরা বলেই দাবি করেছেন। পাশাপাশি নেত্রীর ডাকে ও নির্দেশে আগে ও যেমন দলের জন্য কাজ করেছেন। তেমনি আগামীতেও নেত্রীর নির্দেশে দলের জন্য কাজ করে যাবেন বলে জানান।

এদিকে বিপ্লব মিত্র ফের দলে ফিরতেই জেলা জুড়ে তার অনুগামীদের মধ্যে খুশির হাওয়া। যারা এত দিন ঘরে বা অন্যভাবে দল থেকে নিজেদের বেশ কিছুটা বিচ্ছিন্ন করে নিয়েছিলেন। তারাও রাস্তায় বেড়িয়ে উল্লাসে মাতেন। চলে মিষ্টি মুখ পর্ব ও ফটকা ফাটিয়ে বিপ্লব মিত্রের ফের দলে ফিরে আসার আনন্দে মেতে উঠতে তাদের দেখা যায়। এদের মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হলেন বালুরঘাট পুরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান রাজেন শীলকে।

প্রাক্তন চেয়ারম্যান রাজেন শীল জানান জেলায় দল এতদিন অভিভাবকহীন অবস্থায় ছিল।বিপ্লব মিত্র দলে ফিরে আসায় দল আবার পুর্বের শক্তি ফিরে পাবে। তার পরিশ্রম ও জেলা সভাপতির সাথে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করলে তাদের বিশ্বাস আগামী বিধানসভা নির্বাচনে জেলার ৬ টি আসনের মধ্যে সব কটি তাদের দল পাবে বলে আশা প্রকাশ করেন প্রাক্তন চেয়ারম্যান।

অপরদিকে জেলা বিজেপির তরফে বলা হয় কাউকে জোর করে দল রাখে না। দলে থাকাকালীন ওনাকে যথেষ্ট সম্মান দেওয়া হয়েছে। উনি আসাতেও যেমন দল উপকৃত হয়নি। তেমনি উনি চলে গেলেও দলের কোন ক্ষতি হবে না বলে জানানো হয়।

Follow Me:

Related Posts