রাজ্য

বন্ধুদের সাথে মেলামেশাতে বারণ, তরুণীকে খুনের অভিযোগ আটক বাবা ও দাদা

Bangla24x7 Desk : এক তরুণীকে যখম অবস্থায় উদ্ধার করা হল নিজের বাড়ি থেকে । তাঁকে শ্রীরামপুর ওয়ালস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । সেখানে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয় । প্রতিবেশীদের কথায় , মৃতা তরুণীর নাম ফুলকুমারী বয়স ১৮ । বাইরের কারোর সাথে মেলামেশা করতে দিতেন না তরুণীর বাবা এবং দাদা । পছন্দ করতেন না অন্যের সাথে কথাবার্তা । আর তাদের সেই বারণ না শোনায় শ্বাসরোধ করে তরুণীকে খুন হতে হল । 

মাহেশ এলাকায় তাঁদের বাড়ি সেখান থেকে প্রতিবেশীরা মঙ্গলবার রাতে চিৎকার চেঁচামেচির শব্দ শুনতে পান । তাদের কথায় , সেইদিন সন্ধ্যাবেলা বাইরের কয়েকজনের সাথে কথা বলছিল ফুলকুমারী । তা তাঁর বাবা জয়রাম রায় দেখতে পেয়ে মেয়েকে সেখান থেকে গালিগালাজ দিয়ে টেনে ঘরে নিয়ে যায় । পরে রাত সাড়ে দশটা নাগাদ প্রচণ্ড চিৎকার শুনে প্রতিবেশীরা ছুটে যান সেই বাড়িতে । সেখানে গিয়ে দেখেন তরুণী খাটের উপর পরে রয়েছে অচৈতন্য হয়ে । প্রতিবেশী সেখান থেকে তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃতা বলে ঘোষণা করা হয় ।

 চন্দননগর কমিশনারেটের পুলিশ কর্তারা এই ব্যাপারটি খতিয়ে দেখছেন, এসিপি বিজয়কৃষ্ণ জানান, ওই মৃতা তরুণীর এক যুবকের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিল । তা তাঁর বাড়ির লোক মেনে নেইনি ফলস্বরুপ তাঁর বাইরে অন্যের সাথে কথাবার্তা বন্ধ করতে বলেছিল । কিন্তু তরুণী তা করেনি সে সবার সাথেই মিশত বেশ মিশুকে ছিল ফুলকুমারী । ওই তরুণীর গলাতে দাগ পাওয়া গেছ বলে তিনি জানান । তরুণীকে মারধোর করে তাঁর বাবা বাড়ি থেকে চলে যান । পরে তাঁর দাদা সুবোধ রায় ও জয়রাম রায়কে আটক করা হয় এবং জিজ্ঞাসা বাদ চালানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ক্ষোভ জমেছে সারা এলাকার মধ্যে । প্রতিবেশীদের দাবী তরুণীকে খুন করা হয়েছে ।

Follow Me:

Related Posts