দেশ

উপত্যকায় আবার সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন পাকিস্তানের , হামলার জেরে মৃত্যু এক মহিলার

Bangla 24×7 Desk : লাদাখে ভারতীয় জওয়ানদের উপর অমানবিক আক্রমনের জেরে শহীদ হয়েছেন ২০ জন জওয়ান । আর সেই ঘটনার জেরে ক্ষোভে ফুঁসছেন ভারতীয় নাগরিকরা। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভের আগুন জ্বলছে । কোথাও চিনা পণ্য পুড়িয়ে কোথাও বা চিনের পতাকা পুড়িয়ে চলছে বিক্ষোভ। চিনকে সমরে শিক্ষা দেওয়ার দাবি জানাচ্ছেন দেশের সর্বস্তরের মানুষ। একাধিক বিতর্কিত এলাকা থেকে সেনা সরিয়ে নিয়েছে চিন । উপগ্রহ চিত্রে তার প্রমান মিলেছে । সেখানে দেখা যাচ্ছে প্রকৃত সীমান্তরেখার দু’ধারে চিনা সেনা যে অস্থায়ী ছাউনি গুলি তৈরি করেছিল তা ভেঙে ফেলা হয়েছে। ১৫ ই জুন রাতে যেখানে সংঘর্ষ হয়েছিল সেখান থেকে প্রায় ২ কিলোমিটার পিছিয়ে গিয়েছে চিনা সেনা।

কিন্তু চিনের বন্ধু রাষ্ট্র তথা ভারতের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তান কিন্তু হাত গুটিয়ে বসে নেই । সুযোগের সদ্ব্যবহার করেছে তাঁরা । আবার তাঁদের চিরাচরিত অভ্যাসের কথা সামনে এল ।উপত্যকায় আবারও সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান ।

জানা গেছে , কাশ্মীরের কাছে পুঞ্চে মঙ্গলবার রাত থেকে গুলিবর্ষণ করতে শুরু করে পাক সেনা। সেই গুলিতে নিহত হন ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা। গুরুতরভাবে জখম হন আরও একজন। কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা প্রত্যাহারের পর থেকেই এই সংঘর্ষবিরতি চুক্তিলঙ্ঘনের পরিমাণ ক্রমেই বাড়িয়ে চলেছে পাক সেনা। সম্প্রতি লাদাখ ইস্যুর পর আরও সুযোগ পেয়েছে তারা। কাশ্মীরে জঙ্গি অনুপ্রবেশ করানোর জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে পাকিস্তানের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই ও সেই দেশের সেনাবাহিনীর কর্তারা। ফলে সর্বদাই আতঙ্কে দিন গুনছেন কাশ্মীরের সীমান্ত এলাকায় বসবাসকারীরা।

বুধবার সকালেও পাক সেনার গুলি বর্ষণের জেরে গুরুতরভাবে আহত হন ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা । পরে তাদের স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁদের মধ্যে একজনকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। অপর জনকে জম্মুর একটি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

Follow Me:

Related Posts