দেশ মহানগর রাজনীতি রাজ্য স্বাস্থ্য

কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সঙ্গে অসহযোগিতার অভিযোগ, রাজ্য-কেন্দ্র সংঘাত তুঙ্গে

সমর্পিতা ব্যানার্জী , কলকাতা : রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের মধ্যে যে একটা ঠান্ডা লড়াই লেগেই থাকে সেটা বলার অপেক্ষা রাখেনা.তবে এই করোনা পরিস্থিতিতে এক হয়ে কাজ করার কথা বললেও বাস্তবে দুই দল দুই দিকেই হাঁটছে । রাজ্যের বিরুদ্ধে কেন্দ্র অভিযোগ করেছে যে করোনা আক্রান্ত বা মৃত ব্যাক্তিদের সঠিক তথ্য গোপন করছে রাজ্য আবার ওপর দিকে ডাক্তার , নার্সদের জন্য PPE পোশাক ঠিক মতো দিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছে রাজ্য সরকার. ।

এ হেন অবস্থাতে রাজ্য সরকারকে আগাম না জানিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক যেভাবে হটস্পট জেলাগুলি পরিদর্শনের জন্য প্রতিনিধি দল পাঠিয়েছে তা যুক্তরাষ্ট্রীয় কাঠামোর শর্ত লঙ্ঘন করেছে বলে সোমবারই অভিযোগ করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় । তিনি আরো বলেন যে ঐ প্রতিনিধি দলকে বাংলায় কাজ করতে দেওয়া হবে না ।

সেই মতোই কেন্দ্রের আন্তঃমন্ত্রক প্রতিনিধি দলকে জেলা পরিদর্শনে বেরোতেই দিল না রাজ্য সরকার. যে প্রতিনিধি দল এসেছিল তাদেরকে বিএসএফের ক্যাম্প অফিসে বসিয়ে রাখা হল । প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের সচিব বলেন , কেন্দ্রের তরফে পশ্চিমবঙ্গকে যে নির্দেশ পাঠানো হয়েছিল , সেই মধ্যপ্রদেশ , মহারাষ্ট্র, রাজস্থান সরকারকেও পাঠানো হয়েছিল ওই রাজ্যগুলিতেও কেন্দ্রের প্রতিনিধি দল গিয়েছে । তাঁরা রাজ্য সরকারের সাহায্য নিয়ে ভালরকম কাজও করছেন । কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে কেন বাধা দেওয়া হল বোধগম্য হচ্ছে না তাঁদের ।

তিনি আরঅ বলেন , “কলকাতায় পৌঁছনোর পর থেকে বারংবার মুখ্য সচিবের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি. রাজ্যের সাহায্য চেয়েছি । সোমবার বিকেলে রাজ্য সচিবালয়ে গিয়ে দেখাও করেছি” । তাঁর কথায় , “একদিনের বেশি হয়ে গেলেও নবান্ন ও নাইসেড ছাড়া আর কোথাও আমরা যেতে পারিনি। রাজ্য সরকার আপত্তি করেছে তাঁদের জেলা পরিদর্শনে ।

এই ব্যাপারে রাজ্যের তরফে আজ নতুন করে কিছু বলা হয়নি। বিকালে নবান্নে মুখ্য সচিব সাংবাদিক বৈঠক করে এই ব্যাপারে রাজ্যের অবস্থান জানাতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে । রাজ্য সরকারের এই ব্যবহারে বিরোধীরা সমালোচনার ঝড় তুলেছে ।

Follow Me:

Related Posts