রাজ্য

ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি অভিযোগ , পঞ্চায়েত সদস্যকে কান ধরে ওঠবস করাল স্থানীয় বাসিন্দারা

Bangla 24×7 Desk : আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ত্রাণ নিয়ে দুর্নীতি । এই অভিযোগে পঞ্চায়েত সদস্যকে কান ধরে ওঠবস করাল গ্রামবাসীরা । ঘটনাটি ঘটেছে মথুরাপুর ২ নং ব্লকের নন্দকুমারপুরের কৈলাসপুর গ্রামে ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে , নন্দকুমারপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য স্বপন কুমার ঘাঁটুকে নিয়ে ঘটনার সূত্রপাত । গ্রামবাসীদের অভিযোগ পঞ্চায়েত সদস্য স্বপন কুমার ঘাঁটু আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরিতে দুর্নীতি করেছেন । তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় নিজের আত্মীয়স্বজনের নাম রেখেছেন । অথচ স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যের আত্মীয়রা যারা এই তালিকায় রয়েছেন তাঁদের ঝড়ে তেমন কোন ক্ষতি হয়নি ।

এছাড়া গ্রামবাসীরা বলেন , ” আমরা চাই সঠিক বিচার হোক । যাদের সাজানো ঘর তাঁরা টাকা পাচ্ছেন আর যাদের ঘরবাড়ি ঝড়ে ভেঙে গেছে তাঁদের হাতে কিছু নেই । তাঁদের হাত খালি ” । গ্রামবাসীরা স্বজনপোষণের অভিযোগ তুলে বিক্ষোভে সামিল হন । কিন্তু কোন সুরাহা না মেলায় মঙ্গলবার স্থানীয় বাসিন্দারা প্রথমে বলেরবাজার রোড অবরোধ করেন । স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যকে আটকে রেখে বিডিও এর আসার দাবিতে অনড় থাকেন ।

তারপরে ঘটনাস্থলে পৌঁছান মথুরাপুর ২ নং ব্লকের বিডিও রেজয়ান আহমেদ । সাথে ছিলেন দুই পুলিশ আধিকারিক । বিডিও ও পুলিশের সামনেই অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্য স্বপন কুমার ঘাঁটুকে কান ধরে ওঠবস করায় গ্রামবাসীরা । পরে কান ধরে ঐ পঞ্চায়েত সদস্য স্বীকার করে নেন যে তিনি ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকায় দুর্নীতি করেছেন ।

এই প্রসঙ্গে অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্য স্বপন কুমার ঘাঁটু বলেন , ” আমফান ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরি করতে গিয়ে ত্রুটি বিচ্যুতি হয়েছে। আমি গ্রামবাসীদের কাছে ক্ষমাপ্রার্থী ” । অভিযুক্ত নিজে সব দোষ স্বীকার করার জন্য তাঁকে দল থকে বহিস্কার করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব ।

Follow Me:

Related Posts